আন্তর্জাতিক

মোদির,বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাকিং করেছে পাকিস্তান

দক্ষিণ দুই পরাশক্তি ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা দিন চরম আকার ধারণ করছে। ভারতীয় যুদ্ধ বিমান ভূপাতিত করার পর এবার ভারতীয় একটি সাবমেরিন পাকিস্তানের জলসীমায় প্রবেশের সময় আটকে দিয়েছে পাকিস্তান।

সোমবার (৪ মার্চ) রাতে পাকিস্তানের জলসীমায় প্রবেশের সময় আটকে দিয়েছে পাকিস্তানের নৌবাহিনী। খবর দিয়েছে দ্য ডন।

সাবমেরিন আটকের পর এবার হ্যাকারদের কবলে পড়েছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির অফিসিয়াল ওয়েবসাইট।

মঙ্গলবার (৫ মার্চ) সকাল থেকে সাইটটি দখলে নিয়ে হ্যাকাররা কয়েকটি আপত্তিকর ভিডিও আপলোড করে । আর সন্দেহের তীর পাকিস্তানের দিকে হলেও বিজেপির পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি। খবর দিয়েছে এনডিটিভি ও নিউজ এইটিন।

হ্যাকের পর হোম পেজে দেখা যায়, মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মেরকেলের একটি ভিডিও। আর ভিডিওটির নিচে বিভিন্ন বাজে মন্তব্য করে অনেকেই। এ বিষয়টি ছড়িয়ে পড়তেই তদন্তে নামে বিজেপির আইটি সেল।

বিষয়টি প্রতিক্রিয়ার জানাতে গিয়ে ভারতের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেসের টুইটার ম্যানেজার দিব্য কান্দাহানা নিজের টুইটারে পেজে এ ওয়েবসাইট এররের ছবি দেন।

টুইটে তিনি লেখেন- ‘ভাই ও বোনেরা! যদি এখনও BJP-র ওয়েবসাইট চেক না করে থাকেন, তা হলে দেখুন, আপনারা অনেক কিছু মিস করে যাচ্ছেন । ’

এর আগে পুলওয়ামা হামলার পর বিজেপির নাগপুরের দফতর ও গুজরাটের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং বিজেপি নেতা আইকে জাদেজার ব্লগসহ ভারতের ১০০টি ওয়েবসাইট হ্যাক করেছিল পাকিস্তানের হ্যাকাররা। এ ছাড়া পাকিস্তানি হ্যাকাররা ছত্তিশগড় বিজেপির ওয়েবসাইট হ্যাক করেছিল ।

মূলত, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে চলমান উত্তেজনার শুরু হয়। এরপর ভারতীয় বিমানবাহিনী সেদিন ভোরে পাকিস্তানে ঢুকে হামলা করে। পরবর্তীতে ভারতের যুদ্ধবিমান ভূপাতিত করার পরে দেশটির আটক পাইলটক করে। তবে শান্তির উদ্দেশ্যে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আটক পাইলটকে মুক্ত করে দেন।