খেলাধুলা

৪ ভারতীয়র ক্রিকেটারের এটাই শেষ বিশ্বকাপ

আগামী ৩০ মে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইসিসি ওয়ানডে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। কে জিতবে এবারের বিশ্বকাপ, তা নিয়ে বিশেষজ্ঞরা ইতোমধ্যেই ভবিষ্যদ্বাণী করতে শুরু করে দিয়েছেন। শেষবারের মতো কারা নামতে পারেন ভারতীয় দলের জার্সি গায়ে? চলুন মিলিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করি সে তালিকা।

এদিকে ভারতীয় দলে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান হিসাবে দলে রাখা হয়েছে দীনেশ কার্তিককে। মহেন্দ্র সিং ধোনিকে বাদ দিলে দীনেশই ভরসা। ঋষভ পন্থ যেহেতু দলে নেই, তাই দীনেশের অভিজ্ঞতার উপরে ভরসা করেছে দল।

তাছাড়া ৩৩ বছরের কার্তিককে ২০২৩ বিশ্বকাপে দেখা যাবে না, বলেই মনে করা হচ্ছে। একদিনের ক্রিকেটে কার্তিকের পারফরম্যান্সে অনেক টানাপড়েন এসেছে। তবে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনি ঝলসে উঠতে পারেন বলেই মনে করা হচ্ছে।

এদিকে ভারতীয় দলের ওপেনারের মধ্যে প্রথমেই যার নাম উঠে আসছে, তিনি শিখর ধাওয়ান। ধাওয়ানের ঝোড়ো ইনিংসের অপেক্ষায় রয়েছেন আপামর ক্রিকেটপ্রেমীরা।

তাছাড়া ৩৩ বছরের এই ব্যাটসম্যান সাদা বলের রাজা এমনটাও বলেন অনেকে। তবে বয়সের কথা ভেবেই মনে করা হচ্ছে, বোধ হয় এটাই তার শেষ বিশ্বকাপ হতে চলেছে। ইংল্যান্ডের ফ্ল্যাট পিচে ধাওয়ানের হাত ধরে বিশ্বকাপের পথে ভারত এগিয়ে যাবে বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে ভারতীয় দল তার হাত ধরে বিশ্বকাপ খেলেছে, তাই দলে থাকা কার্যত নিশ্চিতই ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির। আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক হিসাবেও তিনি যথেষ্ট সফল। নিজের পারফরম্যান্সও চমৎকার। সোজা কথা, বুড়ো হাড়ে ভেলকি দেখিয়েছেন মাহি।

তাছাড়া সারা বিশ্বের ক্রিকেটারদের মধ্যে তিনি এই মুহূর্তে সবচেয়ে ফিট, এটা বললে ভুল হবে না। তবে ৪০-এর দিকে এগোচ্ছেন মাহি, তাই ২০১৯ সালের বিশ্বকাপটাই ধোনির শেষ বিশ্বকাপ হতে চলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এদিকে ভারতের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান পুরোদস্তুর ফিট, জানিয়ে দিয়েছেন টিম ইন্ডিয়ার ফিজিও প্যাট্রিক ফারহার্ট। ফলে ২২ মে সতীর্থদের সঙ্গেই ইংল্যান্ড যাওয়ার বিমানে উঠছেন এই স্পিনার অলরাউন্ডার।

এদিকে আইপিএল চলাকালীন কাঁধে চোট পেয়েছিলেন কেদার। বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে চেন্নাই সুপার কিংস কেদারকে বিশ্রাম দিয়েছিল। তবে বিশ্বকাপে ভারতের এক্স ফ্যাক্টর হয়ে উঠতে পারেন তিনি। তবে বয়সের কারণেই ২০২৩ বিশ্বকাপে কেদার খেলতে পারবেন না বলেই মনে হয়।