খেলাধুলা

উইকেট হারালো টাইগাররা,চরম উত্তেজনায় ম্যাচ

প্রথমবারের মতো বৈশ্বিক আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইতিহাস গড়তে বাংলাদেশের প্রয়োজন ১৭৮ রান। সেই লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুরন্ত সূচনা করে টাইগার যুবারা। বিষ্ণুর করা ৯ম ওভারের দ্বিতীয় বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে দলীয় ফিফটি পূরণ করেন তানজিদ হাসান তামিম। কিন্তু এক বল পর আবারও হাঁকাতে গিয়ে আউট হয়ে ফেরেন এই ওপেনার। ফলে ওই রানেই প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। আউট হওয়ার আগে ২৫ বলে দুই চার ও এক ছয়ে ১৭ রান করেন জুনিয়র তামিম।

এক ওভার পর এসে টাইগার ইনিংসে আবারও আঘাত হানেন রবি বিষ্ণু। সেমিফাইনালের সেঞ্চুরিম্যান মাহমুদুল হাসান জয়কে (৮) ঘূর্ণি জাদুতে বোল্ড করে দেন ভারতীয় স্পিনার। যাতে ৬২ রানেই দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ। একটু পরেই, ব্যাথা পেয়ে মাঠ ছাড়েন ২৫ রান করা পারভেজ হোসাইন ইমন। তৌহিদ হৃদয়ও খালি হাতে ফেরেন সেই বিষ্ণুর শিকার হয়ে।

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ২৪.১ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৬ উইকেটে ১০৭ রান। জয়ের জন্য টাইগারদের প্রয়োজন আরও ৭১ রান।

এর আগে প্রথমবারের মতো যুব বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলতে নেমে বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের সদস্যরা। ফাইনালে তাদের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী ভারত। টস জিতে প্রথমে বোলিং বেছে নিয়ে ভারতকে ১৭৭ রানেই গুটিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। অর্থাৎ ১৭৮ রান করতে পারলেই স্বপ্নের বিশ্বকাপ শিরোপার স্বাদ পাবে বাংলাদেশ।

এদিকে, আজ যে কোন পর্যায়ের বিশ্বকাপে এবারই প্রথমবার ফাইনাল খেলছে বাংলাদেশ। ফলে ভারতকে হারাতে পারলে আজকের সফল্যটা স্বার্ণাক্ষরে লেখা থাকবে অনন্তকাল। তবে, এখন পর্যন্ত যা খেলেছে, বোলাররা-ফিল্ডাররা যে নৈপুণ্য দেখিয়েছে, তাতে বিশেষজ্ঞদের মতে, বাংলাদেশ-ই চ্যাম্পিয়ন!

এদিন দক্ষিণ আফ্রিকার পচেফস্ট্রুমে অনুষ্ঠিত এ ফাইনাল ম্যাচের শুরু থেকেই ভারতীয়দের কাঁপিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ। প্রথম ৬ ওভারে মাত্র ৮ রান খরচায় একটি উইকেট তুলে নেয় জুনিয়র টাইগাররা।

যদিও একপ্রান্ত আগলে রেখে বুদ্ধিদিপ্ত ব্যাটিং করে চলেছিলেন সেমিফাইনালে পাকিস্তানের বিপক্ষে অজেয় সেঞ্চুরি হাঁকানো যশস্বি জাসওয়াল। তাই শঙ্কাও ছিল তাকে ঘিরে। তবে, ১৫৬ রানের মাথায় শরিফুল ইসলাম সেই জাসওয়ালকে ফেরালে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ভারতীয় ইনিংস। শেষ পর্যন্ত ৪৭.২ ওভারে গুটিয়ে যায় ভারত।

ভারতের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৮ রান করেন জাসওয়াল ১২১ বল খেলে। আটটি চার ও একটি ছক্কার মার ছিল তার ওই ইনিংসে। এছাড়া তিলক ভার্মার ৩৮ ও জুরেলের ২২ রানই উল্লেখযোগ্য।

এদিন বাংলাদেশের পক্ষে অভিষেক দাস ৯ ওভার বোলিং করে ৪০ রান খরচায় তিন উইকেট নিয়েছেন। তানজিম হাসান সাকিব ৮.২ ওভারে ২৮ রান খরচায় নিয়েছেন তিন উইকেট। দশ ওভারে ৩১ রান দিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম।

আরও পড়ুন

হাতে ১৪ সেলাই নিয়েও প্লে-অফ খেলতে চান মাশরাফি

সোহাগ হোসেন

সেই পূজাকেই বিয়ে করছেন সৌম্য!

সুযোগ পেলে পাকিস্তানে যেতে আপত্তি নেই আশরাফুলের

সিরিজ জিততে অস্ট্রেলিয়াকে কঠিন লক্ষ্য ছুঁড়ে দিল ভারত

সাকিব-মাহমুদুল্লাহর পর তৃতীয় ক্রিকেটার হিসেবে বিপিএলে ম্যান অফ দ্যা টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হচ্ছেন মুশফিকুর রহিম

সাকিব না ফেরা পর্যন্ত ওয়ানডে দলের অধিনায়ক থাকছেন যিনি

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy