খেলাধুলা

ও আমাকে বিরক্ত করছিল, কিন্তু কোনো জবাব দিইনি: ইমন

যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারত-বধের অন্যতম নায়ক ইমন। দলের সেরা স্কোরার, যিনি কিনা শুধু ভারতীয় বোলারদেরই নন, সামলেছেন নিজের চোটটাকেও। এটুকু দ্বিধাহীনভাবে বলা যায়- দলীয় ৬২ রানে রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার পর ১০২ রানে ফের ক্রিজে না এলে, বাংলাদেশ এই বিশ্বকাপ জিততেই পারত না!

এ ব্যাপারে ইমন জানান, ৩ রানের জন্য অর্ধ-শতক হাতছাড়া হলেও কোনো আক্ষেপ নেই তার। একটি বিদেশি সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘এটাই আমার জীবনের সেরা ইনিংস। পঞ্চাশ করতে পারিনি, তাতে কোনো আক্ষেপ নেই। দেশকে বিশ্বকাপ জেতানোর পিছনে আমারও যে অবদান রয়েছে, তা ভেবে খুব ভালো লাগছে।’

তিনি বলেন, ‘আমি যখন ১৫ রানে ব্যাট করছি, তখনই টের পাচ্ছিলাম যন্ত্রণা হচ্ছে। ২৫ রান করার পরে আর টানতে পারলাম না। মাঠেই শুয়ে পড়ি। ভাবলাম আধ ঘণ্টা যদি বিশ্রাম নিই, তা হলে হয়তো পরে ব্যাট করতে পারব। এ দিকে একের পর এক উইকেট যখন যাচ্ছে, তখন আর ডাগ আউটে বসে থাকতে পারলাম না। নেমেই পড়লাম ব্যাট হাতে।’

ইমন বলেন, ‘বিষ্ণই দারুণ বল করছিল। তবে ও আমাকে বিরক্তও করছিল। আমি কিন্তু কোনো জবাব দিইনি। আমি ভাগ্যবান। ওই সময়ে বেঁচে গিয়েছি। পায়ে ক্র্যাম্প থাকায় ঠিক মতো শট খেলতে পারছিলাম না। দৌড়তেও ভীষণ কষ্ট হচ্ছিল। কিন্তু মনকে বলছিলাম, আমাকে পারতেই হবে। এ রকম সুযোগ বার বার পাওয়া যাবে না।’

আরও পড়ুন

হাতে ১৪ সেলাই নিয়েও প্লে-অফ খেলতে চান মাশরাফি

সোহাগ হোসেন

সৌম্য সরকারের গায়ে হলুদের পর্ব শেষ, বিয়ে রাতে

সোহাগ হোসেন

সেই পূজাকেই বিয়ে করছেন সৌম্য!

সুযোগ পেলে পাকিস্তানে যেতে আপত্তি নেই আশরাফুলের

সিরিজ জিততে অস্ট্রেলিয়াকে কঠিন লক্ষ্য ছুঁড়ে দিল ভারত

সিপিএলে অস্কার জিতলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান

সোহাগ হোসেন

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy