মেসির শেষ মুহূর্তের গোলে রিয়াল মাদ্রিদকে সরিয়ে ফের শীর্ষস্থান দখল করল বার্সা।

ম্যাচের পুরোটা সময় বার্সেলোনার সঙ্গে সেয়ানে সেয়ানে লড়াই করেও শেষ পর্যন্ত মেসির কাছে পরাস্ত হলো অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। এই আর্জেন্টাইন ফুটবল জাদুকরের শেষ মুহূর্তের ঝলকেই দিয়েগো সিমিওনের শিষ্যদের ১-০ গোলে হারিয়ে ফের লা লিগার শীর্ষস্থান দখল করল কাতালান জায়ান্টরা।

রোববার (০২ ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে ঘরের মাঠ ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানো স্টেডিয়ামে ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। কিন্তু ৭ম মিনিটে হেরমোসোর শট বারে লেগে ফিরে আসে। ১৩ মিনিট পরেই ফের হোয়াও ফেলিক্সের বাড়ানো বলে পোস্টের একদম কাছ থেকে শট নেন হেরমোসো। কিন্তু এবার পা বাড়িয়ে বার্সাকে বাঁচিয়ে দেন গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টের-স্টেগান।
php glass

৩৭তম মিনিটে আঁতোয়া গ্রিজম্যানের দুর্দান্ত এক পাস থেকে বল পেয়ে জোরালো শট নেন লুইস সুয়ারেস। কিন্তু বার্সার উরুগুইয়ান স্ট্রাইকারের শট অল্পের জন্য পোস্ট মিস করে বেরিয়ে যায়। ৪১তম মিনিটে ফের বার্সাকে রক্ষা করেন টের-স্টেগান। কর্নার থেকে বল পেয়ে পোস্টের মাত্র ৬ গজ দূর থেকে দারুণ এক হেড নিয়েছিলেন অ্যাতলেতিকোর মোরাতা। কিন্তু সঙ্গে সঙ্গে মাটিতে শুয়ে পড়ে ডান হাত দিয়ে দলকে বিপদমুক্ত করেন জার্মান গোলরক্ষক। পুরো ম্যাচেই বার্সা গোলরক্ষক ছিলেন অবিশ্বাস্য।
ksrm

প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় আড়ালে থাকা মেসি দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও ছিলেন অনুজ্জ্বল। কিন্তু ৬৮তম মিনিটে প্রথমবারের মতো আক্রমণভাগে নেতৃত্বে দেখা যায় বার্সা ফরোয়ার্ডকে। দুর্দান্ত কাউন্টার অ্যাটাকে নেতৃত্ব দিয়ে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারদের বোকা বানিয়ে সুয়ারেসের পায়ে বল ঠেলে দেন তিনি। সুয়ারেস দারুণ পাসে বল পাঠান উল্টো প্রান্তে থাকা গ্রিজম্যানের পায়ে। কিন্তু পেনাল্টি অঞ্চলে থাকা সাবেক অ্যাতলেতিকো তারকার ভলি বারের ওপর দিয়ে সাইডলাইনে ঠাই নেয়।
ksrm

ম্যাচের ফলাফল যখন প্রায় নির্ধারিত হওয়ার পথে, ঠিক তখনই স্বরূপে দেখা দেন মেসি। ৮৬তম মিনিটে সার্জি রবের্তোর পাস থেকে বল পেয়ে প্রায় একক প্রচেষ্টায় প্রতিপক্ষের ডিফেন্সে ঢুকে পড়েন তিনি। এরপর ডি-বক্সের সামনে গিয়ে সুয়ারেসের সঙ্গে ওয়ান-টু পাসে বল ফিরে পেয়ে ৪ ডিফেন্ডারকে ফাঁকি দিয়ে বাঁ পায়ের জাদুকরি শটে ওবলাককে পরাস্ত করেন এই খুদে জাদুকর। অ্যাতলেতিকোর গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে পড়েও ঠেকাতে পারেননি বাঁকানো এই শট। ওই এক গোলেই ম্যাচের ফলাফল নির্ধারিত হয়ে যায়।

১৪ ম্যাচ শেষে ১০ জয় ১ ড্র আর ৩ হারে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে এখন বার্সেলোনা। সমান ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়েও গোল ব্যবধানে এক ধাপ পিছিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। অন্যদিকে এক ম্যাচ বেশি খেলে ২৫ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ।

Comments are closed.