অন্যান

বিগত ৫ বছরের মধ্যে সবথেকে বড় সুখবর পেলেন আশরাফুল

বেশ কিছুদিন ধরেই ক্রিকেটপাড়ায় গুঞ্জন রুটেছে বিপিএলে সিলেট সিক্সার্সের হয়ে খেলতে যাচ্ছেন আশরাফুল। তবে এবার আর সেই বিষয়টি গুঞ্জন নয়, সত্য হতে যাচ্ছে।সিলেট সিক্সার্সের সিইও ইয়াসির ওয়াবেদের সাথে ক্রিকেটার আশরাফুলের বেশ ঘনিষ্ঠতা রয়েছে। দু’জনের সম্পর্কটাও বেশ ভাল। সিলেট সিক্সার্সের দরজা তাই আশরাফুলের জন্য খোলা বলে মনে করছেন তার সমর্থকেরা।

তাছাড়া গত ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে আশরাফুল রানে ফেরার ইঙ্গিত দিয়েছেন। ভালো ইনিংসও খেলেছেন। তাই সব বিবেচনায় সিলেট সিক্সার্সে তিনি খেলতে পারেন। সিক্সার্সের ম্যানেজমেন্টও আশরাফুলকে দলে নেওয়ায় আগ্রহী বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল) আগামী আসরে সাবেক টাইগার অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল খেলতে পারবেন কিনা সেটি নিয়ে ভক্ত সমর্থকদের মনে প্রশ্নের শেষ নেই। ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর বর্তমানে প্রিয় এই ক্রিকেটারকে আবারও ব্যাট হাতে দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় আছেন তারা।

জাতীয় দলে না হোক, অন্তত আশরাফুল যেন বিপিএলে খেলতে পারেন সেটাই এখন প্রাণের দাবি ভক্তদের। কিন্তু এই বিষয়টি নিয়েও রয়েছে যথেষ্ট সংশয়। মূলত আশরাফুলের বিপিএল খেলা পুরোপুরি নির্ভর করছে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের ওপর।

কিন্তু সমস্যা হল জানা গেছে আশরাফুলকে নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া রয়েছে ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের মধ্যে। ২০১৩ সালে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলা আশরাফুলকে অনেকেই যে নিতে চাইছেন না সেটি নিশ্চিত হওয়া গিয়েছে একজন ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্মকর্তার বক্তব্যে।

বাংলা দৈনিক মানবজমিনকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে সেই কর্মকর্তা জানিয়েছেন আশরাফুলের মতো একজন ক্রিকেটারের চাহিদা অনেক বেশি থাকলেও তাঁর নৈতিকতা নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন রয়েছে। মূলত এই কারণেই তাঁকে দলে নিতে অপারগতা প্রকাশ করছেন তারা। সেই কর্মকর্তা বলেছেন,

‘আসলে আশরাফুলের মতো একজন ক্রিকেটারকে কে না দলে নিতে চায়। কিন্তু বাস্তবতা এখন ভিন্ন। ধরে নিলাম তিনি খেলার জন্য প্রস্তুত। কিন্তু তার সঙ্গে জড়িয়ে আছে কিছু নৈতিকতার প্রশ্নও। যদি তাকে দলে নেই। আর কোনো ঘটনা ঘটে সেই ক্ষেত্রে আশরাফুলের দিকে আঙুল যাবে না তার নিশ্চয়তা কী!’

আশরাফুল যদি ম্যাচে কোন ক্যাচ মিসও করেন তাহলে জনমনে নানা কানাঘুষা সৃষ্টি হবে বলেও মনে করছেন সেই ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্মকর্তা। সেই কারণে বিপিএলে তাঁকে দলে ভেড়ানোর আগে তিনবার ভাবতে হবে প্রত্যেক দলকেই উল্লেখ করে তিনি জানিয়েছেন,

‘আবার সে ইচ্ছা করে করেনি কিন্তু কারো কাছে মনে হতে পারে সে হয়তো ইচ্ছা করে আউট হয়েছে বা ক্যাচ ছেড়েছে। বলতে পারেন একটি অবিশ্বাস কাজ করবে। যে কারণে আমাদের ফ্র্যাঞ্চাইজিই না সবাই হয়তো ভাববে আশরাফুলকে দলে নেয়া যায় কি না।’

অবশ্য সিলেট সিক্সার্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসির ওবায়েদের কথায় কিছুটা আশার আলো দেখতেই পারেন আশরাফুল। কেননা তিনি নিজেই জানিয়েছেন, বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল অ্যাশকে ড্রাফট লিস্টে রাখলে তাঁকে নিতে আপত্তি নেই সিলেটের। এই প্রসঙ্গে ইয়াসিরের ভাষ্য,

‘দেখেন আমি সবার কথাতো বলতে পারবো না কে কিভাবে চিন্তা করে। তবে, আশরাফুলকে নিতে আমরা কোনো দ্বিধা করবো না যদি বিসিবি তাকে তালিকাভুক্ত করে। বিসিবি তার নাম খেলোয়াড়দের তালিকাতে রাখলে আমাদের যারা দল নির্বাচন করবে তারা চাইলে আশরাফুল খেলতে পারে।’

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy