খেলাধুলা

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যে একাদশ নিয়ে মাঠে নামবে মাশরাফি!

স্পোর্টস ডেস্ক : দরজায় কড়া নাড়ছে এশিয়া কাপ । আসছে ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হচ্ছে এশিয়া কাপ। উদ্বোধনী ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। তবে বাংলাদেশ দলের জন্য এশিয়া কাপ যেন বরাবরই এক হতাশার নাম। গত তিন আসরে দুইবার ফাইনালে উঠেও শিরোপার স্বাদ নেয়া হয় নি টাইগারদের । সর্বশেষ আসরে নিজেদের মাঠে ভারতের কাছে হেরে শিরোপা বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ । এবার আবারও শিরাপো জয়ের মিশনে আরব আমিরাত যাচ্ছে বাংলাদেশ । এবার গ্রুপ পর্বে টাইগাররা শ্রীলঙ্কা ও আফগানিস্তানের বিপক্ষে লড়াই করবে।

মাশরাফির নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ দল ওয়ানডেতে সব সময়ই দারুণ ছন্দে থাকে। কিন্তু এশিয়া কাপের সেরা একাদশ কেমন হবে?

টাইগারদের সেরা একাদশের কয়েকটি নাম আপনি চাইলেই বলে দিতে পারবেন। তামিম, মুশফিক, মাশরাফি, সাকিব ও মাহমুদউল্লাহ- এই পাঁচ নাম টাইগার একাদশের নিয়মিত মুখ। সেই সঙ্গে মুস্তাফিজও খেলছেন তা নিশ্চিত। যদিও সাকিবের ফিটনেস নিয়ে একটা ইস্যু আছে। তবে বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, সাকিব খেলবেন। সেই হেড কোচ রোডসও সাকিবের খেলার বিষয়ে ইতিবাচক কথা বলেছেন।

এবার এশিয়া কাপে তামিমের সঙ্গে ওপেনিংয়ে দেখা যেতে পারে লিটন দাসকে। যদিও তামিমের ইনজুরি নিয়ে অনেক কথা শোনা যাচ্ছে। তবে এখন পর্যন্ত তাঁর না খেলার কথা শোণা যায়নি। আর বিসিবিও জানিয়েছে, তামিমের ইনজুরি নিইয়ে তেমন কোনো দুশ্চিন্তা নেই। প্রথম ম্যাচের আগেই সেরে উঠবেন তামিম। যদি তা না হয়, তবে মোহাম্মাদ মিঠুনকে দেখা যেতে পারে ওপেনিংয়ে। ধরে নেওয়া যেতে পারে তামিম খেলছেন। তাই বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে তামিম-লিটন জুটিকেই এশিয়া কাপে ওপেনিংয়ে দেখা যাতে পারে। তাছাড়া শুরুতেই বামহাতি-ডানহাতি কম্বিনেশন ক্রিকেট বিশ্বে বেশ জনপ্রিয়। কিন্তু তামিম না খেললে এই পজিশনে কাকে খেলাবে তা নিয়ে রয়েছে দুঃশ্চিন্তা।

এরপর তিনে সাকিব অটো চয়েস। বিগত কয়েকটি সিরিজে তিন নম্বর পজিশন নিয়ে দুশ্চিন্তা দূর করেছেন সাকিব। এই পজিশনে রানও পাচ্ছেন। এরপর চারে মুশফিক। পাঁচে এবার মোসাদ্দেককে খেলানো হতে পারে। কারণ শেষ দিকে স্লগ ওভারে মাহমুদউল্লাহর মতো একজন ব্যাটসম্যান প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে মাহমুদউল্লাহ খেলবেন ছয়ে।

আর সাতে সাব্বিরের বদলে সুযোগ পাওয়া আরিফুল হক। সবশেষ বিপিএলে তাঁর নিখুত ফিনিশিং এবং শেষের দিকে দ্রুত রান তোলার প্রশংসা করেছে সবাই। আর উইন্ডিজ সিরিজেও খুব একটা খারাপও করেননি। শেষ দিকে রিয়াদ-আরিফুল জুটি জমে উঠলে দ্রুত রান আসবে স্কোর বোর্ডে। আর আটে মাশরাফি। বিগত কয়েকটি সিরিজেও এই পজিশনে খেলেছেন টাইগার কাপ্তান।

শেষদিকে, রুবেল-মুস্তাফিজ নিশ্চিত। আর একটি পজিশনে স্পিনার মেহেদী মিরাজ এবং নাজমুল অপুর মধ্যে যে কোনো একজন খেলতে পারেন।

তবে মোসাদ্দেকের জায়গায় সদ্য স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়া মমিনুলকেও দেখা যেতে পারে। তাছাড়া শান্তর ইনজুরি নিয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি।

টাইগারদের সম্ভাব্য সেরা একাদশঃ মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, আরিফুল হক, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত/মমিনুল হক, মেহেদি হাসান মিরাজ/নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy