খেলাধুলা

দেশ থেকে বিদায় নেয়ার সময় সবচেয়ে বড় যে চিন্তার কথা বললেন মাহমুদুল্লাহ

দরজায় কড়া নাড়ছে এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। সেপ্টেম্বরের ১৫ তারিখ থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে শুরু হতে যাওয়া এই টুর্নামেন্টের জন্য গতকাল (রবিবার) সন্ধ্যা সাতটার একটি ফ্লাইটে আমিরাতের উদ্দেশ্যে দেশ ছাড়ে বাংলাদেশ দল।যাওয়ার আগে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে মধ্যপ্রাচ্যের গরম নিয়ে শঙ্কা জানিয়ে গেলেন টাইগার অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।পেশাদার ক্রিকেট খেলোয়াড়দের ঘরছাড়া করে রাখে।

এই যেমন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, দুইমাস পর দেশে ফিরে দুদিন পরই উড়াল দিলেন দেশের স্বপ্ন কাঁধে নিয়ে। উইন্ডিজ সফরের পর পুরো দল দেশে ফিরলেও মাহমুদউল্লাহ সিপিএল খেলতে উইন্ডিজেই ছিলেন। এরপর দেশে ফিরেই রওনা করলেন আরব আমিরাতের উদ্দেশ্যে। যাওয়ার আগে রিয়াদ বলে গেলেন, তাকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ও গত আসরগুলোয় এশিয়াকাপে বাংলাদেশের ভালো খেলা।

গত এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলা সত্যিকার অর্থেই ক্রিকেটারদের আত্মবিশ্বাসী করছে। অন্যদিকে টুর্নামেন্টের অন্যদলগুলোও আছে ভালো ফর্মে, বিশেষ করে ভারত-পাকিস্তান। বাংলাদেশের গ্রুপে থাকা শ্রীলঙ্কাও নিয়মিত আরব আমিরাতে খেলে বিধায় কন্ডিশনের সুবিধার দিক থেকে ওরাও বেশ এগিয়ে থাকবে বলে মনে করেন টাইগার অলরাউন্ডার।

রিয়াদ বলেন, ‘আত্মবিশ্বাসের কথা বললে বলব আমার মনে হয় দল হিসেবে অনেক ভালোভাবেই যাচ্ছি আমরা। ভালো খেলেই সর্বশেষ সফরে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারিয়েছি। গত এশিয়া কাপে ফাইনালসহ দুটি এশিয়াকাপ ফাইনাল খেলেছি।’

আরব আমিরাতে নিয়মিত না খেললেও পিএসএলের কারণে কয়েকজন সিনিয়র ক্রিকেটারের অভিজ্ঞতা রয়েছে ওখানকার কন্ডিশনের ব্যাপারে। রিয়াদ মনে করেন ওখানকার গরমটাই একটু প্রভাব ফেলতে পারে, তবে পেশাদার ক্রিকেটার হিসেবে এসব একদমই মাথায় রাখতে চাননা তারা। সাকিব-তামিমদের এখানে খেলার অভিজ্ঞতাকেও বাড়তি সুবিধা হিসেবে যোগ করেন রিয়াদ।

এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আরব আমিরাতের কন্ডিশন কম বেশি আমাদের মতই, কিন্তু গরম একটু গুরুত্বপূর্ণ হবে। তবে পেশাদার ক্রিকেটার বলে আমাদের এসব মানিয়ে নিতে হবে। তামিম, সাকিব, মুশফিক ওখানে খেলেছে, ওখানকার কন্ডিশন অনেকটা জানা। তবে নির্দিষ্ট দিনে কতটা ভালো ক্রিকেট খেলছি সেটাই গুরুত্বপূর্ণ আর আমরা সেটাতেই মনযোগী।’

উল্লেখ্য, আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫ টায় শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এবারের এশিয়া কাপের মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ। আর ওই ম্যাচটিই হবে এবারের এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy