বিনোদন

দ্বিতীয় সন্তান কারিনার গর্ভে

বিনোদন ডেস্ক: বলিউড তারকা কারিনা কাপুর খান ও সাইফ আলি খান প্রায়ই খবরের শিরোনাম হচ্ছেন। চলচ্চিত্র বা বিবৃতির জন্য নয়, তাঁদের আদুরে পুত্রসন্তান তৈমুর আলি খানের জন্য। সেই নবজাতক থেকেই তৈমুর চিত্রসাংবাদিকদের নজর কেড়েছে। এখন তৈমুরের বয়স প্রায় দুই। এর মধ্যেই অসংখ্য ভক্ত জুটিয়ে ফেলেছে সে। বলিউড তারকারাও তাঁর ভক্ত!
সম্প্রতি চলচ্চিত্র সমালোচক কোমাল নেহেতার নতুন শো ‘স্টারি নাইটস’-এর দ্বিতীয় পর্বে একসঙ্গে ছিলেন কারিনা কাপুর ও তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু অমৃতা অরোরা। সাক্ষাৎকারে কারিনাকে জিজ্ঞেস করা হয়, তৈমুরের পর তাঁর ও সাইফের দ্বিতীয় সন্তান নেওয়ার পরিকল্পনা আছে কি না। উত্তরে কারিনা বলেন, ‘দুই বছর পর।’

ওই সময় অমৃতা বলেন, ‘আমি তাঁকে (কারিনা) বলেছি, সে যদি ফের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়, তবে যেন আমাকে জানায়; কারণ আমি দেশ ছেড়ে চলে যাব।’ খবর টাইমস নাউ নিউজের।

তা হলে অবশেষে তৈমুর তাঁর আদুরে সঙ্গী পেতে চলেছে। আর এতে কোনো সন্দেহ নেই যে পরবর্তী সন্তানও খুবই আদুরে হবে এবং চিত্রসাংবাদিকদের প্রিয় হয়ে উঠবে।

এক সাক্ষাৎকারে কারিনা আরো জানান, তিনি ও সাইফ দুজনই তৈমুরের সঙ্গে দুষ্টুমি করতে ভালোবাসেন। আর এটাই নাকি তাঁদের প্রিয় কাজ! তৈমুরের বয়স এখন প্রায় দুই বছর। সম্প্রতি দেখা যায়, চিত্রসাংবাদিকরা যখন ছবি তোলেন, সে বুঝতে পারে। কয়েকবার তো পোজও দিতে দেখা গেছে!

তারকা পুত্র-কন্যাদের নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের কমতি নেই। ছোট্ট তৈমুর এখন বেশ জনপ্রিয়। ভক্তরা তার ডাকনাম রেখেছেন—তাই তাই। একটু একটু করে কথা বলা শিখছে সে। সামান্য সহায়তা করলে হাঁটতেও পারে। বাইরে বের হলে তাই তৈমুরের প্রতিটি মুহূর্ত ক্যামেরায় ধরে রাখার চেষ্টা করেন আলোকচিত্রীরা।

এ বয়সেই ‘ইন্টারনেট সেনসেশন’ হয়ে উঠেছে তৈমুর। তবে আলোকচিত্রীদের বাড়াবাড়িতে কিছুটা নাখোশ কারিনা কাপুর।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘তৈমুরের প্রতিটি পদক্ষেপের নজরদারি করা হচ্ছে… এটা আমি পছন্দ করি না। মানুষ এখনই ওর চুলের স্টাইল থেকে শুরু করে সবকিছু নিয়ে কথা বলা শুরু করেছে। আমি জানি না, কীভাবে এসব নিয়ন্ত্রণ করব। আমার মনে হয়, তৈমুর অনেক জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। আর সে ক্যামেরার সামনে ঠিকমতো তাকায়!’

২০১২ সালে সাইফ আলি খানকে বিয়ে করেন বলিউড অভিনেত্রী কারিনা কাপুর। ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর তৈমুর আলি খানের জন্ম হয়। দ্বিতীয় সন্তানের দর্শন পেতে কারিনা-সাইফভক্তরা নিশ্চয়ই আরো দুই বছর অপেক্ষা করবেন!

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy