এক্সক্লুসিভ

২০০ টাকা ধার করে রাতারাতি কোটিপতি!

এক্সক্লুসিভ ডেস্ক: পেশায় তিনি একজন শ্রমিক। এতে তার যা আয় তা দিয়ে সংসার চলে কোনোমতে। পরে একদিন শুনলেন লটারির কথা। নিজের পকেটে টাকা ছিল না। প্রতিবেশীর কাছ ২০০ টাকা ধার নিয়ে লটারি কাটেন । আর এ লটারিই তার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিল। ২০০ টাকা দিয়ে লটারি কেটে দেড় কোটি টাকার মালিক হয়ে যান এই শ্রমিক। ভাগ্যবান ওই শ্রমিকের নাম মনোজ কুমার। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের শংরুর জেলায়।

ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়, মনোজ কুমার (৪০) ও তার স্ত্রী রাজ কৌর একটি ইট ভাটায় দৈনিক মজুরির ভিত্তিতে কাজ করেন। এতে তাদের দৈনিক আয় ২৫০ টাকা করে ৫০০ টাকা। এভাবেই তাদের কোনোমতে দিন কাটছিল। একদিন তিনি জানতে পারেন সরকার পরিচালিত ‘রাখি বাম্পার’ লটারির কথা। পুরস্কার নগদ দেড় কোটি টাকা। তবে যখন মনোজ লটারির বিষয়টি জানতে পারেন, তখন তার কাছে টাকা ছিল না। তিনি এক প্রতিবেশীর কাছ থেকে ২০০ টাকা ধার দেন।

স্রষ্টা বোধহয় তার হাতে পুরস্কার তুলে দেয়ার অপেক্ষায় ছিলেন। এক লটারিতেই বাজিমাত। লটারি জিতে রাতারাতি কোটিপতি বনে যান এই শ্রমিক। লটারি জেতার পর নিজের অনুভূতির কথা জানিয়েছেন মনোজ।

‘আমার কাছে টাকা ছিল না। বাধ্য হয়েই প্রতিবেশীর কাছে হাত পাতি। টাকা ধার নিতে আমাকে মিথ্যা কথা বলতে হয়েছিল। বলেছিলাম-আমার বড় মেয়ের স্বপ্ন পুলিশে যোগ দেবে। তবে তার লেখাপড়া চালিয়ে যাওয়ার মতো আমার সাধ্য নেয়। এছাড়া আমার আরেকটি স্বপ্ন, আমার অন্য মেয়ে নার্সের পেশায় আসতে চায়। তবে আমি চাই, সে ডাক্তারি পড়ুক। এতে ওই প্রতিবেশী টাকা ধার দেন’-বলেন মনোজ কুমার।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy