খেলাধুলা

মাশরাফির পরিবর্তে অধিনায়কত্ব পেলেন মেহেদী হাসান মিরাজ

সাকিব তামিমকে ছাড়া বাংলাদেশ দল জিততে পারে এটা প্রমাণের আর কোনো কারণ নেই। গতকাল বাংলাদেশ দলের এই দুই গ্রেট ক্রিকেটার ছাড়াই পাকিস্তানকে ৩৭ রানে উড়িয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ দল। হাতের ইনজুরির কারণে প্রথম ম্যাচই ছিটকে পড়েছিলেন তামিম ইকবাল দেশে ফিরে আসলেন তার দুদিন পরেই।

গতকাল ম্যাচের আগে দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। এমনিতে ইনজুরি নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে বাংলাদেশ দলে খেলছেন তিনি। এই দুই ক্রিকেটারকে ছাড়াই গত কাল মাঠে নামে বাংলাদেশ। কিন্তু ম্যাচের মাঝপথে বুকে ব্যথা পেয়ে বাইরে চলে যান মুশফিকর রহিম।

এর পরেই শোয়েব মালিকের দুর্দান্ত ক্যাচ ধরে মাঠের বাইরে চলে যান বর্তমান অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। জানা গেছে তখন মাঠের বাইরে ছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। শোয়েব মালেক আউটের পর মাঠে ছিলেন না বাংলাদেশ জাতীয় দলের বর্তমান সময়ে পাচঁ সেরা ক্রিকেটার। তাহলে তখন দলের অধিনায়ক ছিলেন কে?

বর্তমান অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা ছিলেন বাইরে সহ-অধিনায়ক তামিম ইকবাল এবং সাকিব আল হাসান চলে এসেছেন দেশে মাঠের বাইরে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এবং মুশফিকুর রহিম।

গত এক দশকে সম্ভবত প্রথম বার এই পাচ জনকে ছাড়া কয়েকটা মিনিট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেললো বাংলাদেশ। আর ওই সময়টায় বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক ছিল অনূর্ধ্ব ১৯ দল থেকে উঠে আসা মেহেদি হাসান মিরাজ।

সাকিব আল হাসান নেই, নেই তামিম ইকবাল। ইনজুরি নিয়ে খেলছেন মুশফিকুর রহীম এবং অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। দলের নিউক্লিয়াস যারা, তাদেরই অধিকাংশ নেই।

এমন একটি দল নিয়েই এশিয়া কাপের ফাইনালে পৌঁছে গেলো বাংলাদেশ। আবু ধাবির শেখ জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাকিস্তানকে ৩৭ রানে হারিয়ে দিয়ে টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে উঠলো বাংলাদেশ।

বাংলাদেশের ছুঁড়ে দেয়া ২৪০ রানের জবাব দিতে নেমে পাকিস্তান থমকে গেলো মাত্র ২০২ রানে। ওপেনার ইমাম-উল হক একাই লড়াই করলেন। তিনি খেলেছেন ৮৩ রানের এক দুর্দান্ত ইনিংস। তবে বাংলাদেশের বোলারদের সাঁড়াসি বোলিংয়ের সামনে এই ইনিংস আর খুব একটা কাজে লাগলো না। পাকিস্তানের পরাজয় ঠেকাতে পারেনি।

শুরু থেকেই মিরাজ-মোস্তাফিজদের বোলিং আক্রমণে দিশেহারা অবস্থা শুরু হয় পাকিস্তানের। প্রথম ওভারেই মিরাজের ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হয়ে উইকেট হারান পাকিস্তানের ওপেনার ফাখর জামান। রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান। পরের ওভারেই মোস্তাফিজের আক্রমণ।

৪ ওভারের মধ্যেই ৩ উইকেট তুলে নিয়ে পাকিস্তানকে ব্যাকফুটে ঠেলে দেয় বাংলাদেশ। সেখান থেকে ইমাম-উল হক, শোয়েব মালিক, আসিফ আলিদের মাঝারি ধরনের কয়েকটা ইনিংস পাকিস্তানকে লড়াকু পজিশনে নিয়ে আসে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy