খেলাধুলা

ভারতের বিপক্ষে বদলাচ্ছে এই কৌশল, ওপেনিংয়ে থাকছে বড় চমক

স্পোর্টস ডেস্ক: এশিয়াকাপের ফাইনালে আজ বিকেলে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লড়াইয়ের এ ম্যাচের একাদশ নিয়ে চলছে বেশ গবেষণা। পাকিস্তানের বিপক্ষে একদশে না থাকলেও আজ একাদশে ফিরতে পারেন স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু আর ওপেনিং পজিশনে থাকছে বড় চমক। এমনটাই আভাস দিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি।

সুপার ফোরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে অভিষেক হয় বাঁহাতি স্পিনার অপুর। অভিষেক ম্যাচে ২৯ রান দিয়ে ছিলেন উইকেট শূন্য। পাকিস্তানের বিপক্ষে সাকিব আল হাসান না থাকায় এলোমেলো হয়ে যায় কম্বিনেশন। ব্যাটিং শক্তি কমে যাবে সেই ভাবনায় খেলানো হয়নি অপুকে। ভারতের বিপক্ষে বদলাচ্ছে এই কৌশল।

কোনও বাঁহাতি স্পিনার ছাড়া পাকিস্তানের বিপক্ষে ‘গ্যাম্বলিং’ সফল হলেও শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে খেলা ভারতের বিপক্ষে এমন বোকামোর দিকে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়াই হয়ে গেছে। দলসূত্রে জানা গেছে, অপুকে দলে নেওয়ার মজার আরেক কারণ হলো বাংলাদেশ দল নাকি ঘেঁটে দেখেছে এই টুর্নামেন্টে তুলনামূলকভাবে স্পিনের বিপক্ষেই বেশি ভুগছেন ভারতীয়রা।

সংবাদ সম্মেলনেও একজন স্পিনার বাড়ানোর আভাস দিয়েছেন মাশরাফি, ‘সাকিব থাকলে তো আর চিন্তা করতে হতো না। সাকিব না থাকায় এটা একটা চিন্তার বিষয়। চেষ্টা করছি কীভাবে কী করা যায়।’

‘এখানের উইকেট একদিন দেখেছি। যখন পাকিস্তানের সঙ্গে ভারত খেলল তখন দেখলাম এক উইকেট,একেবারে ফ্ল্যাট উইকেট। আবার আফগানিস্তান-ভারত ম্যাচে দেখলাম উইকেটে টার্ন হচ্ছে। এমনকি নবীর বলও অনেক টার্ন করছে। রশিদ খান-মুজিব হলে কথা ছিল, কিন্তু নবীর বলে টার্ন মানে অন্য কিছু। ’

অপু একাদশে ফিরলে বসিয়ে দেওয়া হবে একজন ব্যাটসম্যান। সেক্ষেত্রে মুমিনুল হকেরই বাদ পড়ার সম্ভাবনা বেশি।

একাদশ তো বটেই ব্যাটিং অর্ডারেও হয়ত আসছে বদল। প্রায় এক বছর পর ওয়ানডেতে নেমে ওপেনিংয়ে কোন রান করার আগেই ফেরেন সৌম্য সরকার। পরে বল হাতে অবদান রেখেছেন দলের জয়ে। একাদশে টিকে থাকছেন সেকারণেই। কিন্তু ব্যাটিং ব্যর্থতায় অবনমন হতে পারে তার। সৌম্যকে ছয় বা সাতে খেলানোর পরিকল্পনা আছে দলের। সৌম্য নিচে নেমে গেলে নিজের পছন্দের পজিশন ওপেনিংয়ে ফিরবেন ইমরুল কায়েস।

ওপেনিং পজিশন নিয়ে অবশ্য কিছুটা হেয়ালি করেছেন মাশরাফি। যেকোন চমকের জন্য অপেক্ষা করতে বলেছেন। চমকটা ওয়ানডাউনেও আসতে পারে। টপ অর্ডারের প্রথম তিন ব্যাটসম্যান থেকে রান না আসায় ‘আউট অব দ্য বক্স’ কিছু করার চিন্তা আছে দলের।

ফাইনাল ম্যাচে সম্ভাব্য একাদশ: লিটন দাস, ইমরুল কায়েস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মোহাম্মদ মিঠুন, সৌম্য সরকার, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি মর্তুজা, নাজমুল ইসলাম অপু, রুবেল হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

 

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy