খেলাধুলা

লিটনের অাউটে কাঠগড়য় অাম্পিয়াররা

ভারতের বিপক্ষে আবারও আম্পায়ারের বিমাতাসুলভ আচরণের শিকার হলো বাংলাদেশ। দুর্দান্ত পারফরমেন্স করা লিটন দাসকে কোনোভাবেই ভারতীয় বোলাররা পরাস্ত করতে পারছিল না। শেষমেশ নেমে এলো তার ওপর বিতর্কিত আম্পায়ারিংয়ের খড়গ।

৪১তম ওভারের শেষ বলে (কুলদীপ যাদবের) এগিয়ে মারতে চেয়েছিলেন লিটন। রিপ্লাইয়ে দেখা গেছে, প্রথম পর্যায়ে পা ঠিক না থাকলেও ধোনি বল স্ট্যাম্পিং করার আগে নিরাপদে পা ছিল লিটন দাসের।

কিন্তু সবাইকে অবাক করে দিয়ে থার্ড আম্পায়ার লিটন দাসকে আউট ঘোষণা করেন। এ নিয়ে সামাজিক মাধ্যম ব্যবহারকারীরা বিস্ময় প্রকাশ করছেন। কারণ, এ ধরনের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে ধোঁয়াশার সৃষ্টি হলে সাধারণ বেনিফিট অব আউট ব্যাটসম্যানের পক্ষে যায়। কিন্তু থার্ড আম্পায়ার সিদ্ধান্ত দেন বাংলাদেশের বিপক্ষে।

এশিয়া কাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করলেও মুসফিক, মাহমুদউল্লাহর উদাসিন ব্যাটিংয়ে রান করেছে বাংলাদেশ দল।

ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনার লিটন কুমার এবং মেহেদি হাসান। মাত্র ৩৩ বলেই ক্যারিয়ারের প্রথম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিল লিটন কুমার। ৬ টি চার এবং দুটি ছক্কা হাঁকিয়েই ফিফটি করেন তিনি। ১৮ ওভারেই দলীয় ১০০ রান করেন এই দুই ওপেনার।

কিন্তু এর পরেই ছন্দ পতন হয় বাংলাদেশের। দলীয় ১২০ রানের মাথায় ৩২ রান করে অাউট হন মিরাজ। পরবর্তী ৩০ রান তুলতে অারো ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। দ্রুতই ফিরেছেন কায়েস, রহিম, মিথুন, মাহমুদউল্লাহ। ২ রান করে অাউট হন কায়েস। দলীয় ১৩৭ রানের মাথায় ৫ রান করে ফেরেন মুসফিকুর রহিম।

২ রান করে রান অাউট হন মিথুন। তবে এদিন একাই লড়াই করেছেন লিটন কুমার। ৮৭ বলে নিজের মেডেইন সেঞ্চুরি করেন তিনি। এরপরেই ৪ রান করে দলকে বিপদে ফেলেন মাহমুদউল্লাহ। তবে এরপরে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে তোলেন লিটন-সৌম্য। দলীয় ১৮৮ রানের মাথায় ১১৭ বলে ১২১ রান করে অাউট হন তিনি। শেষের দিকে সৌম্য সরকার ৩৩ রান করেন।

খেলাটি সরাসরি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

বাংলাদেশ একাদশ : লিটন দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ মিঠুন, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), ইমরুল কায়েস, মাহমুদুল্লাহ, মেহদি হাসান, মাশরাফি মুর্তজা (অধিনায়ক), নাজমুল ইসলাম, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান।

ভারত একাদশ : রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), শিখর ধাওয়ান, আম্বতী রায়দু, দিনেশ কার্তিক, এমএস ধোনি (উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা, ভূবনেশ্বর কুমার, কুলদীপ যাদব, ইউজভেন্দ্র চাহাল, জাসপ্রিত বুমরাহ।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy