খেলাধুলা

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচে সাকিবের পরিবর্তে নাইম হাসান, এবং লিটন ও ইমরুলের পরিবর্তে সৌম্য

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচে বাংলাদেশ দলে আসছে একাধিক পরিবর্তন। ইনজুরি থেকে ফিরে দলে খেলার সম্ভাবনা রয়েছে সাকিব আল হাসানের। তবে এখনো অনিশ্চিত তামিম ইকবাল।সাকিব আল হাসান এর পরিবর্তে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচ খেলেছিলেন বাঁহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু।

সিলেটে নিজের অভিষেক ম্যাচে নিজের টেস্ট খেলার সামর্থ্য প্রমাণে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছেন নাজমুল অপু। যে কারণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে তিনি থাকছেন না- এটা একদম নিশ্চিত। তাহলে কে খেলবেন নাজমুল ইসলাম অপু বদলে? দেশের একটি পত্রিকাকে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু জানিয়েছিলেন ১৭ বছর বয়সী অফস্পিনার নাঈম হাসানের কথা।

দারুন ছন্দে রয়েছে এই তরুণ স্পিনার। সবশেষ জাতীয় ক্রিকেট লিগে ২৮ উইকেট নিয়ে হয়েছিলেন আসরের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী। তাই চট্টগ্রামের ছেলে নাঈম হাসানকে চট্টগ্রামেই হতে যাওয়া ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের প্রথম ম্যাচে নেয়ার ব্যাপারে ইতিবাচক ইঙ্গিত দিয়েছিলেন প্রধান নির্বাচক।

তবে নাঈম ইসলাম ও অনিশ্চিত। কারণ পারফরম্যান্স বা অন্য কারণে নয়, বরং বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের খেলা বা না খেলার ওপরেই মূলত নির্ভর করছে নাঈমের স্কোয়াডে থাকার ভাগ্য।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে খেলতে পারবেন না তামিম ইকবাল- এটি একদম নিশ্চিত। তবে এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ব্যাপারে। তার খেলার ব্যাপারে ম্যাচের দুই-তিন দিন আগপর্যন্তও অপেক্ষা করবে বিসিবি। একদম শেষ মুহূর্তে গিয়েও যদি নিজেকে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত করতে পারেন সাকিব, তাহলেও তাকে নিয়েই খেলতে নামবে বাংলাদেশ।

নতুবা নাজমুল অপুর বদলে স্কোয়াডে ঢুকে যাবেন চট্টগ্রামের তরুণ অফস্পিনার নাঈম। তাকে স্কোয়াডে নেয়ার পরিকল্পনাস্বরুপই সিরিজ শুরুর আগে হতে যাওয়া দুইদিনের প্রস্তুতি ম্যাচের একাদশেও রেখেছে বিসিবি। রোববার থেকে হতে পাওয়া ম্যাচে নাঈমের বোলিং আরও একবার দেখে নিতে চায় বোর্ড।

সেক্ষেত্রে শনিবার বা রোববার ঘোষণা দিতে যাওয়া স্কোয়াডে হয়তো একজন বা দুইজনের জায়গা খালি রেখে দেবে বিসিবি। প্রস্তুতি ম্যাচে নাঈম হাসানের বোলিং এবং সাকিব আল হাসানের সেরে ওঠার চূড়ান্ত রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করেই যেকোনো একজনকে নিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজের চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করবেন নির্বাচকরা।

এদিকে নির্বাচক কমিটির ঘনিষ্ঠ সুত্র আরও নিশ্চিত করেছেন যে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে খেলা দুই ম্যাচের সিরিজ থেকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজে বাদ পড়বেন তিন টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত, লিটন দাস ও ইমরুল কায়েসের মধ্যে যেকোনো একজন।

জিম্বাবুয়ের সিলেটে প্রথম টেস্টে খেলেছিলেন শান্ত। তার ব্যাট থেকে রান এসেছিল মোটে ১৮ (৫+১৩)। ভালো করতে পারেননি দুই ম্যাচেই খেলা ইমরুল ও লিটন। ওয়ানডে সিরিজে নিজেদের সামর্থ্যের প্রমাণ দেয়া ইমরুল ও লিটন টেস্ট সিরিজে পাননি একটি ফিফটিও। ইমরুল দুই ম্যাচের চার ইনিংসে করেছেন যথাক্রমে ৫, ৪৩, ০ ও ৩। লিটনের সংগ্রহ ছিলো যথাক্রমে ৯, ২৩, ৯ ও ৬।

তাই এ তিনজনের একজন বাদ যাবেন তা একদম নিশ্চিত। সে জায়গায় দলে ঢুকবেন আরেক বাঁহাতি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকার। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি যার মিডিয়াম পেস বোলিংটাও কাজে লাগাতে চায় দল।