বিনোদন

দেশটির সুন্দরীরা ভেনেজুয়েলা ছাড়ছেন

গত কয়েক বছর ধরে ভেনেজুয়েলার অর্থনীতির অবস্থা টালমাটাল। ফলে সেখানে খাদ্যাভাব ও মুদ্রাস্ফীতি দেখা দেয়। এ জন্য প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ভেনেজুয়েলা ছেড়ে যাচ্ছেন। অন্যান্য শিল্পের মতোই এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বিনোদন জগত। শুধু তাই নয়, মিস ভেনেজুয়েলার মতো প্রতিযোগিতার হাত ধরে যে নারীরা এতদিন কর্মসংস্থান পেতেন, তারাও পড়েছেন সমস্যায়। অর্থনীতির পতনের কারণে সুন্দরীরা পাড়ি দিচ্ছেন মেক্সিকো, কলোম্বিয়া বা পর্তুগালে। জীবিকার খোঁজে তারা পাড়ি দিয়েছেন তুরস্ক বা ভারতের মতো দূরের দেশগুলোতেও।

‘মিস ইউনিভার্স’ প্রতিযোগিতায় প্রতিনিধিত্ব করেন আন্দ্রেয়া ডিয়াজ। তার জন্ম ভেনেজুয়েলার শহর ভালেন্সিয়াতে হলেও প্রথমে পানামা ও পরে মেক্সিকো হয়ে চিলিতে যান তিনি। আপাতত সেখানেই তার বসবাস। ভেনেজুয়েলায় মডেলের চাহিদা কমতে থাকায় দেশত্যাগ করেন তিনি।

কারাকাস শহরের রেডিও সঞ্চালক রাফায়েল ব্রিসেনোর মতে, নব্বইয়ের দশক থেকেই ভেনিজুয়েলায় বাড়তে থাকে সৌন্দর্য প্রতিযোগিতা। বিশেষ করে ‘মিস ভেনেজুয়েলায়’ অংশগ্রহণে বাড়ে অল্প বয়সী নারীদের আগ্রহ। এই প্রতিযোগিতার মঞ্চ থেকেই উঠে আসেন বহু মডেল, অভিনেত্রী, টেলিভিশন সঞ্চালিকা থেকে মেয়র বা রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী।

এদিকে আগামী মাসে অনুষ্ঠিত হতে চলা ‘মিস ওয়ার্ল্ড’ প্রতিযোগিতায় পর্তুগালের হয়ে মঞ্চে নামবেন এক ভেনেজুয়েলার নারী। এছাড়া ‘মিস আর্থ’ প্রতিযোগিতায় দেখা গেছে দুই ভেনেজুয়েলান নারীকে, যারা পেরু ও স্পেনের প্রতিনিধিত্ব করেন। দুর্বল অর্থনীতি বা সামাজিক চাপসহ একাধিক সমস্যার সম্মুখীন হয়ে ভেনেজুয়েলা ত্যাগ করছেন সেই দেশের উঠতি তারকারাও।