জাতীয়

নির্বাচনে সেনাবাহিনী ভুমিকার বিষয়ে যা বললেন সেনাপ্রধান

সেনাপ্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ জানিয়েছেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দায়িত্ব পেলে সেনাবাহিনী পেশাদারিত্ব বজায় রাখবে। দায়িত্ব পেলে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের স্বার্থে অতীত ঐতিহ্যের ধারাবাহিকতায় পেশাদারিত্ব বজায় রাখবে সেনাবাহিনী।

রবিবার (১৮ নভেম্বর) দুপুরে সাভার সেনানিবাসে দুর্দম এগারো ইউনিটের রেজিমেন্টাল কালার প্যারেড অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

সেনাপ্রধান বলেন, আগামী মাসে দেশে সাধারণ নির্বাচন। সম্ভবত সেনাবাহিনীকে নিয়োগ করা হবে। আমরা অতীতেও এ দায়িত্ব পালন করেছি। পেশাদারিত্বের সঙ্গে অতীত ঐতিহ্যের আলোকে আমরা সেই দায়িত্ব সুষ্ঠুভাবে পালন করব।

তিনি বলেন, ‘একটা শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠু নির্বাচন যাতে সম্পন্ন হয়, সেই লক্ষ্যে দায়িত্ব পালনে সেনাপ্রধান হিসেবে আমি নির্দেশনা দিচ্ছি।’

সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ়প্রত্যয়, দূরদর্শিতা ও সঠিক দিকনির্দেশনার কারণে বাংলাদেশ আজ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত হয়েছে। যে কারণে দেশের গণ্ডি ছাড়িয়ে বিদেশেও বুক ফুলিয়ে আমরা পরিচয় দিতে পারি যে আমরা উন্নয়নশীল জাতিরাষ্ট্রের সদস্য।
ন।

দেশের স্বার্থে সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করবে জানিয়ে তিনি বলেন, আমাদের মনে রাখতে হবে, আমরা যে মর্যাদা লাভ করেছি তা ২০২৪ সালের মধ্যে টেকসই করতে হলে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়ন, শিক্ষাসহ সব ক্ষেত্রে যে অগ্রগতি সাধিত হয়েছে, তা ধরে রাখতে হবে। এই অগ্রযাত্রার অংশীদার হিসেবে দেশের অর্থনীতির অগ্রযাত্রায় সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রাখার স্বার্থে যে কোন দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত সেনাবাহিনী।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সেনাবাহিনীর নবম পদাতিক ডিভিশনের জিওসি (জেনারেল অফিসার কমান্ডিং) ও সাভার এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল আকবর হোসেন, কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল লেফটেন্যান্ট জেনারেল শামসুল হক প্রমুখ।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy