খেলাধুলা

ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজে রান করায় দেশিয় রেকর্ড করে ফেলেছিলেন ইমরুল কায়েস

স্পোর্টস ডেস্ক: ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজে রান করায় দেশিয় রেকর্ড করে ফেলেছিলেন ইমরুল কায়েস। কদিনের মধ্যে সেই তিনিই  একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে টেস্টে নেমে একদম বিবর্ণ। টেস্টে ইমরুলের রান না পাওয়া অবশ্য অনেকদিনের ঘটনা। সর্বশেষ ২০ ইনিংসেও তার ব্যাট থেকে আসেনি কোন ফিফটি। কোচ স্টিভ রোডস এই ওপেনারের লাল বলে আত্মবিশ্বাসের ঘাটতিই দেখছেন।

ইমরুল কায়েস সর্বশেষ ফিফটি করেছিলেন পাক্কা দুই বছর আগে। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৭৮ রানের ইনিংসের পর ৪০ পেরুতে পেরেছেন আর কেবল দুবার। ৩৬ টেস্টের ক্যারিয়ারও ইমরুলের জন্য বিব্রতকর পরিসংখ্যান নিয়ে হাজির। ৭০ ইনিংসে মোটে ৫০ ছাড়িয়েছেন ৭ বার, তার মধ্যে তিনবার গিয়েছেন তিন অঙ্কে।

বাংলাদেশ দলের কোচের মনে হচ্ছে লাল বলই আসলে ভোগান্তির কারণ ইমরুলের, ‘এতগুলো ইনিংস ফিফটি না পেলে তা আত্মবিশ্বাসে প্রভাব ফেলে। সাদা বলে যে আত্মবিশ্বাসী ইমরুলকে দেখা গেল, লাল বলে ততটা বিশ্বাস নিয়ে সে ব্যাট করতে পারেনি। ব্যাপারটা হলো উইকেটে গিয়ে নিজেকে মেলে ধরার। যত সময় উইকেটে কাটানো যায়, সবারই আত্মবিশ্বাস তত বাড়ে।’

জিম্বাবুয়ে সিরিজে বাংলাদেশের দুই ওপেনারই ছিল চরম ব্যর্থ। ৪ ইনিংসে ইমরুল করেন ৫৩ রান আর লিটন দাস ৪৭। তবু ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টিকে গেছেন ইমরুল, বাদ লিটন। যদিও ওপেনিংয়ে নামার আগের কয়েক টেস্টে লিটন রান পাচ্ছিলেন জুতসই।

টপ অর্ডারের এই খারাপ সময় ভাবাচ্ছে কোচকেও, ‘টপ অর্ডার আমাদের প্রত্যাশামতো জ্বলে উঠতে পারছে না। মাঝে মাঝে এরকম হয়ে যায়। সবসময় রান করে যাওয়া সম্ভব হয় না। ইমরুল এখানে বড় উদাহরণ। ওয়ানডে দুর্দান্ত ফর্মে আছে, কিন্তু টেস্টে সেই ফর্মটাকে বয়ে আনতে পারেনি।’

চোটের কারণে চট্টগ্রাম টেস্টেও ফিরতে পারেননি তামিম ইকবাল। লিটন বাদ পড়ায় ইমরুল ওপেনিং সঙ্গী হিসেবে পাচ্ছেন সৌম্য সরকারকে। এক বছরের বেশি সময় পর টেস্ট দলে ফেরা সৌম্যের চেয়ে অনেক বেশি চাপে থাকবেন ইমরুলই। এই টেস্টেও রান না পেলে তাকে বয়ে বেড়ানো নিয়ে নতুন করে ভাবতে চাইবে দল।-thedailystar.net

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy