খেলাধুলা

ফ্রান্স-জার্মানিকে টপকে শেষ চারে নেদারল্যান্ডস

রাশিয়া বিশ্বকাপের দর্শক সারিতে ছিল নেদারল্যান্ডস। সেই শোকটাকে রীতিমতো শক্তিতে রূপান্তর করেছে ডাচ শিবির। বিশ্বকাপের পরই বদলে গেছে টোটাল ফুটবলের জনকরা। ফ্রান্স-জার্মানির মতো দলকে পেছনে ফেলে উয়েফা নেশনস লিগের সেমিফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে নেদারল্যান্ডস।

the netherlands in the uefa nations league

শেষ চার নিশ্চিত করতে হার ঠেকানোই যথেষ্ঠ ছিল তাদের। কিন্তু প্রথমার্ধে দুই গোল হজম করে হারের শঙ্কাতেই পড়েছিল নেদারল্যান্ডস। সেখান থেকে দুর্দান্ত এক প্রত্যাবর্তন করেছে কমলা শিবির। দ্বিতীয়ার্ধে দুই গোল করে জার্মানিকে জয়বঞ্চিত করছে তারা। নাটকীয় ম্যাচে ২-২ গোলে ড্র করে নেদারল্যান্ডস।

ডাচদের ড্রয়ে কপাল পুড়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্সের। ‘এ’ লিগের গ্রুপ-১ এর চ্যাম্পিয়ন হিসেবে সেমিফাইনালে উঠেছে নেদারল্যান্ডস। দুটি দলেরই চার ম্যাচে সমান সাত পয়েন্ট। কিন্তু হেড টু হেডে এগিয়ে থাকায় শীর্ষ দল ডাচ শিবির। চার ম্যাচে দুই পয়েন্ট পাওয়া জার্মানি অবশ্য আগে থেকেই ছিটকে গেছে প্রতিযোগিতা থেকে।

the netherlands in the uefa nations league 2

আগামী বছরের জুনে ‘এ’ লিগের সেরা দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে শিরোপা নির্ধারণী পর্ব। যেখানে শেষ দল হিসেবে জায়গা করে নিল নেদারল্যান্ডস। ডাচদের আগে গ্রুপ-২ থেকে সুইজারল্যান্ড, গ্রুপ-৩ থেকে রোনালদোবিহীন পর্তুগাল এবং গ্রুপ-৪ থেকে ইংল্যান্ড সেমিফাইনালে উঠেছে।

প্রথম লেগে জার্মানিকে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছিল নেদারল্যান্ডস। বদলে যাওয়া ডাচরা দ্বিতীয় লেগে এক পয়েন্ট পেলেই চলতো। কিন্তু শঙ্কায় পড়ে যায় তারা। নয় মিনিটে প্রথম গোল হজম করে নেদারল্যান্ডস। টনি ক্রুসের কাছ থেকে বল পেয়ে ডাচদের জালে বল জড়ান টিমো ভেরনার।

১০ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করে জার্মানি। গোলটা অবশ্য ভাগ্যবশত পেয়েছে চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। লিরয় সানে শট নিয়েছিলেন, কিন্তু নেদারল্যান্ডসের ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে পাল্টে যায় বলের গতিপথ। বল খুঁজে নেয় জালের ঠিকানা। জার্মানদের এই গোলেরও কারিগর রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার ক্রুস।

দুই গোল হজমের পর ঘুম ভাঙে নেদারল্যান্ডসের। জার্মানির বিপদসীমায় আক্রমনের পসরা সাজায় তারা। তবু হতাশ হতে হচ্ছিল তাদের গোলের মুখ না দেখায়। অবশেষে ৮৫ মিনিটে স্বস্তির প্রথম গোল করে নেদারল্যান্ডস। জার্মানিকে একটি গোল ফিরিয়ে দেন প্রমেস। পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে স্কোর লাইন ২-২ করে বসেন ফন ডিক। তাতেই জয়ের আনন্দে মেতে ওঠে নেদারল্যান্ডস!