রাজনীতি

সরকারের হাঁটু কাপা শুরু হয়ে গেছে: ডা. জাফরুল্লাহ

জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ও গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘সরকারের আচরণে বোঝা যাচ্ছে তাদের ভিত নড়ছে। আমরা বুঝতে পারছি, আপনাদের হাঁটু কাপা শুরু হয়ে গেছে।’

শনিবার (২৪ নভেম্বর) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত মুক্তিযোদ্ধা দলের আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কথা তাঁর সেনাবাহিনী এখন শুনছে না। পুলিশ এখন আমাদেরকে বলছে আন্দোলনের মাঠে অবস্থান করতে। বোঝাই যাচ্ছে, সরকারের ভিত নড়ে গেছে। যখন বেনজির ও আসাদুজ্জামান মিয়ারা যোগাযোগ শুরু করেছে তখন ভয়ে সকরারের হাঁটু কাঁপা শুরু হয়েছে। এর পরও যারা এই সরকার ও প্রশাসনকে ভয় পান তাদের দিয়ে কিছু হবে না।’

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘যাদেরকে এত ভয় করেন পুলিশ ও র‌্যাবের ডিজি তারা এখন যোগাযোগ করছে বিভিন্ন জায়গায়। তাই আপনারও ভয় পাবেন না। তারা সর্বোচ্চ কি করতে পারে- ধরে নিয়ে যাবে, সর্বোচ্চ মেরে ফেলবে। ১৯৭১ সালে আমাদের মরে যাওয়ার কথা ছিল। গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠা করতেই আমরা এখনো বেঁচে আছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা যেসব সমাবেশ করেছি সব জায়গায় পুলিশ রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছিল। তবুও হেঁটে গিয়ে মানুষ সমাবেশে অংশগ্রহণ করেছে। এ ধরনের ঘটনা দেখা গেছে সত্তরের দশকে মাওলানা ভাসানীর ডাকে মানুষ যখন আন্দোলনে অংশগ্রহণ করেছিল।’

ঐক্যফ্রন্টের পক্ষ থেকে নিজের প্রত্যাশার কথা জানিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এ নেতা বলেন, এবারের জাতীয় সংসদে কমপক্ষে ১৫ জন মুক্তিযোদ্ধা নেতা থাকবে। তবেই আমাদের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা প্রতিষ্ঠা হবে। তারা ১৯৭১ সালে যেভাবে যুদ্ধ করেছিল দেশের গণতন্ত্র রক্ষায় সংসদেও সেভাবেই অবস্থান নেবেন।