খেলাধুলা

শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ল রিয়াল মাদ্রিদ

স্পোর্টস ডেস্ক: চ্যাম্পিয়নস লিগে রোমার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়ালের হয়ে একটি করে গোল করেন গ্যারেথ বেল ও লুকাস ভাসকেজ।
প্রথমার্ধে রিয়াল মাদ্রিদ অনেক সুযোগ দিয়েছে রোমাকে। সেগুলোর একটিও কাজে লাগাতে পারেনি ইতালিয়ান ক্লাবটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই রিয়ালকে উপহার দেয় রোমা। সেটা সানন্দে গ্রহণ করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ।

এ নিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে ১২ ম্যাচের একটিতেই নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে পেরেছে রোমা। তাও সেটা ২০০২ সালের অক্টোবরের কথা। অ্যাওয়ে ম্যাচটি রিয়াল হেরেছিল ১-০ গোলের ব্যবধানে। আর চ্যাম্পিয়নস লিগে এর আগে রোমার বিপক্ষে শেষ পাঁচটি ম্যাচের চারটিতেই জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে ম্যাচটি রিয়াল হেরেছিল ২-১ গোলের ব্যবধানে।

লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচে দুই দলই হেরেছে। লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ এইবারের বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে বাজেভাবে হেরেছিল। আর রোমা ১-০ গোলে পরাজয় বরণ করেছিল উদিনেসার বিপক্ষে।
মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচটিতে গোলের অনেক সুযোগ পেয়েছে রোমা। নিজেদের মাঠে সেগুলোর একটিও কাজে লাগাতে পারেনি স্বাগতিকেরা। উল্টো ম্যাচের ৪৭ মিনিটে রোমার ডিফেন্ডার ফাজিওর শিশুসুলভ ভুলে পিছিয়ে পড়ে স্বাগতিকেরা। রোমার আর্জেন্টাইন এই ডিফেন্ডারের হেড বেলের সামনে গিয়ে পড়ে। গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে মোটেও ভুল করেননি বেল।

এর আগে প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় এলোমেলো রক্ষণের পসরা সাজিয়ে বসেছিল সোলারির শিষ্যরা। কিন্তু রিয়ালের দুর্বল রক্ষণের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি রোমা। যদিও দুর্দান্ত কিছু সেভ করে রিয়ালকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক কোর্তোয়া।

পিছিয়ে পড়া রোমা দ্বিতীয়ার্ধে আর খেলায় ফিরতে পারেনি। বরং রিয়াল দ্বিতীয়ার্ধে এসে নিজেদের গুছিয়ে নেয়। বেলের মাপা শটে মাথা ছোঁয়ান বেনজেমা। গোলপোস্টের সামনে থাকা ভাসকেজের সামনে বল পড়ে। বলের গায়ে ঠিকঠাক ঠিকানা লিখে দেন রিয়ালের স্প্যানিশ এই তারকা। জয় দিয়েই শেষ ষোলো নিশ্চিত করল রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও হেরেও নকআউটে উঠেছে রোমা।-প্রথম আলো

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy