খেলাধুলা

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে লজ্জাজনক ভাবে হারলো ভারত

ওয়ানেডে সিরিজে দাপট দেখানো ভারতকে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে একেবারে বিধ্বস্ত করে ছাড়লো নিউজিল্যান্ড। ওয়েলিংটনে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে সফরকারীদের ৮০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল কিউইরা।

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে রানের হিসেবে সবচেয়ে বড় হারের লজ্জাটা পেল ভারত। এর আগে ২০১০ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ব্রিজটাউনে ৪৯ রানে হেরেছিল তারা।

প্রথমে ব্যাট করা নিউজিল্যান্ড নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৬ উইকেট হারিয়ে ২১৯ রানের পাহাড় গড়ে। জবাবে ১৯.২ ওভারে সবকটি উইকেট হারিয়ে মাত্র ১৩৯ রান সংগ্রহ করতে পারে নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলির বিশ্রামে দলনেতা রোহিত শর্মা ও তার দল।

২২০ রানের বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে কিউই বোলারদের তোপে পড়ে ভারত। ব্যক্তিগত এক রানে টিম সাউদির বলে বিদায় নেন অধিনায়ক রোহিত। আরেক ওপেনার শিখর ধাওয়ান (২৯) ও বিজয় শঙ্কর (২৭) কিছুটা চেষ্টা করলেও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি।

ফিনিশার খ্যাত মাহেন্দ্র সিং ধোনি দলীয় সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন। তবে দলকে জেতানোর মতো অবদান রাখতে পারেননি। হার্দিক পান্ডিয়ার ব্যাট থেকে আসে ২০ রান। দলের হয়ে আর কেউই দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি।

সাউদি সর্বোচ্চ ৩টি উইকেট নেন। এছাড়া লোকি ফার্গুসন, মিচেল স্যান্টনার ও ইশ সোধি দুটি করে উইকেট ভাগাভাগি করেন। অভিষিক্ত ড্যারেল মিচেল একটি উইকেট দখল করেন।

টসে হেরে এর আগে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারতীয় বোলারদের তুলোধুনো করে ঝড় তোলেন ওপেনার টিম সেইফার্ট। খলিল আহমেদের বলে আউট হওয়ার আগে তিনি ৪৩ বলে ৭টি চার ও ৬টি ছক্কায় ৮৪ রান করেন। ম্যাচ সেরাও হন তিনি। সমান ৩৪ রান করেন কলিন মুনরো ও অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

ভারতীয় পাঁচ বোলারের সবাই প্রায় ওভার প্রতি নয়ের ওপর রান দিয়েছেন। পান্ডিয়া সর্বোচ্চ দুই উইকেট পেলেও চার ওভারে ১২.৭৫ ইকোনোমিতে দিয়েছেন ৫১ রান।

৮ ফেব্রুয়ারি অকল্যান্ডের সিরিজের দ্বিতীয় টি-২০ অনুষ্ঠিত হবে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy