খেলাধুলা

ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন সাকিব আল হাসান

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) এর ষষ্ঠ অাসরে চ্যাম্পিয়ন হল কুমিল্লা। ঢাকাকে রানে হারিয়ে দ্বিতীয় শিরপা ঘরে তুলল কুমিল্লা। ফাইনালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এর ২০০ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই নারাইন ০ রানে রান অাউট হলে উপুল থারাঙ্গা এবং রনি তালুকদারের ব্যাটে দারুন শুরু পায় ঢাকা। মাত্র ২৬ বলে ফিফটি তুলে নেন রনি তালুকদার।

১০২ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ২৭ বলে ৪৮ রান করে অাউট হন উপুল থারাঙ্গা। তবে অাজ তামিম সফল হলেও ফাইনালে জ্বলে পারনেনি সাকিব। ৩ রান করে ওহাব রিয়াজের বলে অাউট হন সাকিব। তবে দল বিপদে পড়ে রনি রান অাউট হলে। ৩৮ বলে ৬৬ রান করে অাউট হন রনি।

দলীয় ১৩২ রানের সময় রাসেল অাউট হলে ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়ে ঢাকা। এরপর কারইন পোলার্ডকে ওহাব রিয়াজ অাউট করলে জয় প্রায় নিশ্চত হয়ে যায় কুমিল্লার। শেষ পয়ন্ত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে রান করে ঢাকা।

এর অাগে শিরোপা যুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ১৯৯ রান সংগ্রহ করেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কুমিল্লার বিশাল সংগ্রহের দিনে সেঞ্চুরি করেছেন তামিম ইকবাল। ষষ্ঠ আসরের সর্বোচ্চ ১৪১ রানের ইনিংস খেলে অপরাজিত থাকেন তিনি।

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ফাইনাল ম্যাচে টস জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠান ঢাকার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতে এভিন লুইসকে হারালেও এনামুলকে নিয়ে দুর্দান্ত খেলতে থাকেন তামিম ইকবাল।

মাত্র ৩১ বলে তুলে নেন ব্যক্তিগত হাফ সেঞ্চুরি। ১২তম ওভারে এনামুল হক বিজয়কে ফিরিয়ে ৮৯ রানের এই জুটি ভাঙেন সাকিব আল হাসান। যাওয়ার আগে দুই বাউন্ডারিতে ৩০ বলে ২৪ রান করেন এনামুল। পরের ওভারে ব্যক্তিগত শূন্য রানে আউট হন শামসুর রহমান।

দ্রুত দুই উইকেট হারালেও ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠেন তামিম। ঢাকার বোলারদের পিটিয়ে মাত্র ৫০ বলেই বিপিএলের ইতিহাসে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন এই ড্যাশিং ওপেনার। এই পর্যন্ত বিপিএলের মোট ছয় আসরে ১৮টি সেঞ্চুরি হলেও এতোদিন সেঞ্চুরির দেখা পাননি তামিম।

এদিন ৩১ বলে হাফ সেঞ্চুরি করা তামিম পরের ৫০ করেন মাত্র ১৯ বলে। মোট ৫০ বলে সেঞ্চুরি করতে আটটি চার এবং সাতটি ছক্কা হাঁকান এই ওপেনার। ইনিংস শেষে ১৪১ রানে অপরাজিত থাকেন তামিম। ৬১ বলে তার ইনিংসটি সাজানো ১১টি ছক্কা এবং ১০টি বাউন্ডারি দিয়ে।

তামিমের সঙ্গে ১৭ রানে অপরাজিত থাকেন ইমরুল কায়েস। তামিমের ব্যাটে চড়ে ঢাকার সামনে ২০০ রানের বিশাল টার্গেট রাখে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। ঢাকা ডায়নামাইটসের হয়ে ৪ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন সাকিব আল হাসান। ৪৮ রান দিয়ে একটি উইকেট নেন রুবেল হোসেন।

ঢাকা একাদশ : উপুল থারাঙ্গা, সুনিল নারিন, রনি তালুকদার, সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), কারইন পোলার্ড, আন্দ্রে রাসেল, নুরুল হাসান সোহান, মাহমুদুল হাসান, শুভাগতহোম, রুবেল হোসেন এবং কাজী অনিক।

কুমিল্লা একাদশ : তামিম ইকবাল, এভিন লুইস, ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), এনামুল হক বিজয়, শামসুর রহমান, শহীদ আফ্রিদি, থিসারা পেরেরা, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, ওয়াহাব রিয়াজ, মেহেদী হাসান এবং সঞ্জিত সাহা।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy