খেলাধুলা

এইমাত্র পাওয়াঃ সাকিবের ইনজুরি নিয়ে বড় সুখবর দিল বিসিবি

ত্রিদেশীয় সিরিজে লিগ পর্বের শেষ ম্যাচে ইনজুরি নিয়ে মাঠ ছাড়েন অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এরপরই শঙ্কা জেগে উঠে সবার মনে কতটুকু আঘাত পেয়েছেন সাকিব। আর কত দ্রুত সুস্হ হবেন তিনি।

বিশ্বকাপের আগে কি তবে বড় ধরনের শঙ্কার মধ্যে পড়ে গেলো বাংলাদেশ। টানা ইনজুরিতে থাকা সাকিব আল হাসান কি আবারও ইনজুরিতে পড়ে গেলেন! ঠিক এখনও বোঝা যাচ্ছে না। কিংবা দলীয় কোনো সূত্র থেকে এখনও এ ব্যাপারে আপডেট জানানো হয়নি। তবে জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েব সাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো জানাচ্ছে, সম্ভবত সাইড স্ট্রেইনে ভুগছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশ যখন আয়ারল্যান্ডের ছুড়ে দেয়া ২৯২ রানের জবাবে ব্যাট করছিল, তাতে সাকিব আল হাসানের অবদান ৫০ রান। ৫১তম বলে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করার পরই বাম পাশে ব্যাথা অনুভব করেন।

বাংলাদেশ দলের তখন ৩৬তম ওভারের খেলা চলছিল। তার এক ওভার আগেই দেখা যাচ্ছেল এক পাশে হাত দিয়ে ঢলছিলেন। তখন মাঠে নেমে আসেন ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহন। বেশ কয়েকমিনিট তিনি চেষ্টা করেন ব্যাথা কমানোর। এরপর সাকিব সিদ্ধান্ত নেন ব্যাটিং চালিয়ে নেয়ার।

কিন্তু ৩৬তম ওভারে এসে হাফ সেঞ্চুরি পূরণ করেন। জসুয়া লিটলকে পুল করে বাউন্ডারি মারার পর বুঝতে পারেন, তার পক্ষে আর ব্যাট করা সম্ভব নয়। এরপরই মাঠ ছেড়ে উঠে যান।

এর আগে গত এক বছরে বেশ কয়েকবার আঙ্গুলের ইনজুরিতে ভুগছিলেন সাকিব। যে কারণে অনেকগুলো সিরিজ এবং ম্যাচ খেলতে পারেননি তিনি।

এক্ষেত্রে টাইগার ভক্তদের বড় সুখবর দিয়েছে ত্রিদেশীয় সিরিজের টাইগারদের ম্যানেজিংয়ের দায়িত্বে থাকা মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। জানিয়েছেন শঙ্কামুক্তই আছেন সাকিব। খেলবেন ফাইনাল ম্যাচেও।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নান্নু বলেন ‘আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সাকিবের পাওয়া আঘাতটা তেমন গুরুতর কিছু নয়। আমরা তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চাইনি, তাই আমরা তাকে মাঠ থেকে ফিরিয়ে নিয়ে আসি। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে খুব দ্রুতই সাকিব সুস্থ হয়ে ফিরবে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ইনিংসের ৩৬তম ওভারের শেষ বলে সিঙ্গেল নিয়ে ফিফটি পূর্ণ করেন সাকিব। এরপর রিটায়ার্ড হার্ট হয়ে মাঠ ছাড়েন। তার আগে ৫১ বলে চারটি বাউন্ডারিতে করেন ৫০ রান। তার ঠিক আগেই বেশ কিছু সময় তাকে মাঠে শুয়ে থাকতে দেখা যায়। এরপর ফিজিও তিহান চন্দ্রমোহন প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাকে ব্যাটিংয়ে ফেরানোর চেষ্টা করলেও লাভ হয়নি। উঠে দাঁড়িয়ে পপিং ক্রিজে ফিরে গেলেও ব্যাটিংয়ের সাহস করেননি। ক্যারিয়ারের ৪২তম ফিফটি নিয়ে (৫০) ফিরে যান ড্রেসিংরুমে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy