অপরাধ

নারী রোগীর হাতে-মুখে চুমু দিলেন ডাক্তার!

চিকিৎসার নামে রোগীর হাতে-মুখে চুমু দেয়াসহ যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে কুলাউড়ার ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান মিশনের ডাক্তার ডেভিডের বিরুদ্ধে। এক সিজারিয়ান অস্ত্রোপচার রোগীর সেলাই কাটার সময়ে শরীরের স্পর্শকাতর স্থানে স্পর্শ করেন ডাক্তার ডেভিড।

চিকিৎসকের এমন আচরণে ওই রোগীর আত্মীয় ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান স্বাস্থ্য প্রকল্পের (বিসিএইচপি) পরিচালক বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান স্বাস্থ্য প্রকল্প (বিসিএইচপি) কর্তৃপক্ষ।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, গত ১৫ সেপ্টেম্বর এক অন্তঃসত্ত্বা নারী ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান মিশনের ডাক্তার ফরিদ আহমদের কাছে চিকিৎসা নিতে আসেন। গৃহবধূর নরমাল ডেলিভারির জন্য ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান মিশনে ভর্তি করেন এবং একদিন অপেক্ষার পরামর্শ দেন ডাক্তার ফরিদ। কিন্তু ওই দিন রাত ৩টায় খ্রীষ্টিয়ান মিশনে ইনচার্জ ডাক্তার ডেভিট গৃহবধূর অপারেশ (সিজার) করতে হবে বলে জানান রোগীর আত্মীয়দেরকে। সিজারের মাধ্যমে জন্ম নেওয়া নবজাতকের পরের দিন জ্বল এলে ডেভিডকে বিষয়টি অবগত করলেও গুরুত্ব দেননি তিনি।

অন্যদিকে গত ২৭ সেপ্টম্বর ওই গৃহবধূ অপারেশনের (সিজার) সেলাই কাটাতে আসেন কুলাউড়ার ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান মিশনে। খ্রিষ্টিয়ান মিশনের ইনচার্জ ডাক্তার ডেভিড সেলাই কাটার এক পর্যায়ে গৃহবধূর হাতে-মুখে চুমু দেন এবং নানাভাবে যৌন হয়রানি করেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

এদিকে অভিযোগের ভিত্তিতে ডাক্তার ডেভিডের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে কুলাউড়ার ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান স্বাস্থ্য প্রকল্প (বিসিএইচপি) কর্তৃপক্ষ। তবে বাদীর অভিযোগ বিষয়টি ধামাচাপা দিতে একটি পক্ষ কাজ করছে।

এ প্রসঙ্গে ডাক্তার ডেভিড অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তবে ডাক্তার ডেভিডের কাছ থেকে অভিযোগ সংক্রান্ত প্রাসঙ্গিক বেশ কয়েকটি প্রশ্নের সদুত্তর পাওয়া যায়নি।

এ প্রসঙ্গে কুলাউড়ার ব্রাহ্মণবাজার খ্রীষ্টিয়ান স্বাস্থ্য প্রকল্প (বিসিএইচপি) এডমিন উত্তম চক্রবর্তী বলেন, এ বিষয়টি আমাদের পরিচালক দেখছেন। এটা শক্তভাবে দেখা হবে। এ ঘটনা দুঃখ ও লজ্জাজনক বলে মন্তব্য করেন তিনি।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy