অপরাধ

শ্রমিক লীগের কার্যালয়ে জুয়ার আসর

আখাউড়া রেলওয়ে শ্রমিক লীগ অফিসে বুধবার রাতে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। সেখান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১৬ জুয়াড়িকে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, আখাউড়া রেলওয়ে থানা সংলগ্ন রেলওয়ে ক্লাব ও রেলওয়ে শ্রমিক লীগের কার্যালয়ে নিয়মিতই জুয়ার আসর বসে। রেলওয়ে ক্লাবেই ছিল বড় জুয়ার আসর। যেখানে এলাকার পাশাপাশি দূর-দুরান্ত থেকে জুয়াড়িরা আসতেন। প্রধানমন্ত্রীর কঠোর অবস্থান ও সারাদেশে অভিযানের কারণে প্রায় এক সপ্তাহ ধরে বন্ধ রেলওয়ে ক্লাবটির জুয়া। তার পাশেই শ্রমিক লীগ অফিসের আড়ালে চলছিল পুরনো কারবার।

আটক জুয়াড়িরা হলেন- ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার কোড্ডা এলাকার মৃত অলি চান মোল্লার ছেলে মো. হুমায়ুন কবির (৪৫), জমশেদ ভূঁইয়ার ছেলে বাবুল মিয়া (৫০), মৃত রফিজ মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর খলিফা (৫০), মৃত জাহের ভূঁইয়ার ছেলে আয়ুব মিয়া (৫৫), শ্যামনগর এলাকার প্রেম লাল দাসের ছেলে নির্মল দাস (৩২), হরেন্দ্র দাসের ছেলে সজিব দাস (৩০), মৃত ফুল মিয়ার ছেলে খলিলুর রহমান (৫০), ইউনুছ খলিফার ঝেলে সুশেন খলিফা (৫০), চান্দি এলাকার মৃত উজির আলীর ছেলে সফিকুল ইসলাম (৫৫), আখাউড়া উপজেলার দেবগ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে শেখ কাজল (৩৫), আখাউড়া কুমারপাড়া কলোনীর মৃত আবুল হোসেনের ছেলে কাউছার আলী (৫০), রেলওয়ে কলোনীর মৃত মোসলেম উদ্দিনের ছেলে নজরুল ইসলাম (৫৭), মৃত জোগেশ চন্দ্র দাসের ছেলে অরুণ চন্দ্র দাস (৪২), বিজয়নগর উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকার জারু মিয়ার ছেলে মো. আব্দুর রহমান (৪০), হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জ উপজেলার রসুলপুর এলাকার আব্দুল আলীমের ছেলে রহিজ উদ্দিন (৪০) ও ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলার মাছিমপুর এলাকার আব্দুল মোতালেবের ছেলে শাহ আলম (৫০)।

আখাউড়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রসুল আহমদ নিজামী জানান, শ্রমিক লীগের কার্যালয়ে জুয়ার আসর বসে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় জুয়ার টাকা ও জুয়া খেলার তাসসহ ওই ১৬ জুয়াড়িকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More

Privacy & Cookies Policy