28 C
Bangladesh
May 21, 2022
খেলাধুলা

শেষে বেলায় উইকেট তুলে নিলেন এবাদত। প্রথম দিন শেষে নিউজিল্যান্ডের সংগ্রহ ৫ উইকেটে ২৫৮ রান।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্তটা যে ভুল ছিল সেটাই প্রমাণিত হলো। যদিও টসে জিতে বোলিং করতে নেমে দলীয় ১ রানের মাথায় অধিনায়ক টম লাথাম উইকেট তুলে নেয় বাংলাদেশ। তবে ডেভন কনওয়ের সেঞ্চুরিতে প্রথম দিন শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৫৮ রান সংগ্রহ করেছে নিউজিল্যান্ড।

ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি নিউজিল্যান্ড। ইনিংসের চতুর্থ ওভারে শরিফুল ইসলামের করা বলে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ তুলে দেন নিউজিল্যান্ডের ওপেনার টম লাথাম। অবশ্য দ্বিতীয় উইকেটে ডেভন কনওয়েকে সঙ্গে নিয়ে দলকে টানতে থাকেন উইল ইয়াং।

দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দুজন মিলে তুলে অপ্রতিরোধ্য ১৩৮ রানের জুটি। মনে হচ্ছিলো, সারাদিন ধরেই হয়তো ব্যাটিং করবেন এ দুই টপঅর্ডার ব্যাটার। অন্তত বাংলাদেশের কোনো বোলারই তাদের সাজঘরে ফেরানোর মতো বোলিং করতে পারেননি।

কিন্তু শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের জন্য সৌভাগ্যজনক রান আউটে ভেঙেছে জুটি, ফিফটি হাঁকিয়ে সাজঘরে ফিরেছেন ডানহাতি ওপেনার ইয়ং। আউট হওয়ার পূর্বে করেন ৫২ রান। ১৩৫ বলে খেলা তার এই ইনিংসটি ৬টি চারে সাজানো।

পরের উইকেটে এবার অভিজ্ঞ ব্যাটার রস টেলরকে দলীয় স্কোর বাড়াতে থাকেন কনওয়ে। আর আপনতালে ব্যাট করতে থাকা এই ব্যাটার তুলে নেন ব্যক্তিগত সেঞ্চুরি। আর ঠিক ৫০ রানে ভাঙে জুটি। শরিফুলের বলে সাদমানে হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে ৩১ রান করেন টেলর।

এদিকে সেঞ্চুরি পূর্ণ করার পর খুব বেশি সময় ক্রিজে অবস্থান করতে পারেননি কনওয়ে। বাংলাদেশি অধিনায়ক মুমিনুল হকের বলে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ তুলে দেওয়ার আগে করেন ১২২ রান। ২২৭ বলে খেলা এই ইনিংসটি ১৬টি চার এবং ১টি ছয়ে সাজানো।

তবে দিনের শেষ ওভারে চমক দেন এবাদত হোসেন। ১১ রান করা টম ব্লান্ডেলকে বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে দুটি উইকেট নিয়েছেন শরিফুল ইসলাম এবং একটি করে উইকেট নিয়েছেন এবাদত হোসেন এবং মমিনুল হক। ৩২ রান করে অপরাজিত রয়েছেন হেনরি নিকোলস।

আরো পড়ুন

টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ। একাদশে নেই কোনো পরিবর্তন।

Shohag

বিপিএল-এ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সে বোলিং কোচ অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে গতিশীল ফাস্ট বোলার শন টেইট।

Shohag

আমাদের কপাল খারাপ, যখন দরকার হয় তখন আমরা সাকিবকে পাই না।

Shohag