24 C
Bangladesh
December 2, 2022
খেলাধুলা

সুনীল নারিনের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ের পর মঈন আলীর ব্যাটে বরিশালকে ১৫২ রানের টার্গেট দিয়েছে কুমিল্লা

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের ফাইনাল ম্যাচের ফরচুন বরিশালকে ১৫১ রানের টার্গেট দিয়েছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বিপিএলের ফাইনালে ব্যাট হাতে তাণ্ডব চালালেন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার সুনীল নারিন। গত ম্যাচের মতো এই ম্যাচেও তান্ডব চালিয়েছেন তিনি। প্রথম ওভারের চতুর্থ বলে মুজিব উর রহমানকে লং অনে ৬ মেরে শুরু, প্রথম ওভারেই নেন ১৮ রান!

শফিকুলের দ্বিতীয় ওভারে আবার ২ ছয় ১ চারে ১৮ রান! দুই ওভারে আসে ৩৬ রান। তবে একমাত্র সুনীল নারিন ছাড়া টপ অর্ডারে আর কোন ব্যাটসম্যান গান করতে পারিনি। তৃতীয় ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান লিটন দাস। সাকিব মাত্র ৪ রান দিয়ে ফেরান লিটন দাসকে।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারের প্রথম বলে মেহেদি হাসান রানাকে ৬ হাঁকিয়ে ২১ বলে দেখা পান ফিফটির। পরের বলেই সোজাসুজি উড়িয়ে মারতে গিয়ে বাউন্ডারি লাইনে ধরা পড়েন শান্তর হাতে। পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে নারিন ফেরার পর থেমে যায় কুমিল্লার রানের চাকা। মুজিব-ব্রাভোরা চেপে ধরে ইমরুল কায়েসের দলকে।

পরের চার ওভারে তারা মাত্র ২১ রান সংগ্রহ করে। রানআউট হয়ে মাহমুদুল হাসান জয় ফেরেন মাত্র ৮ রানে। ফাফ ডু প্লেসিকে ৪ রানের বেশি করতে দেননি মুজিব। ব্রাভোর বাউন্সে ১২ রানে পরাস্ত হন ইমরুল। ০ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন আরিফুল হক।

৯৫ রানের মধ্যে ছয় উইকেট হারিয়ে বড় ধরনের চাপে পড়ে কুমিল্লা। সেখান থেকে দলকে ভালো সংগ্রহ এনে দেন মঈন আলী ও আবু হায়দার রনি। শেষ ওভারে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মঈন আলী। ৩২ বলে ৩৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। তবে ওভারের তৃতীয় এবং চতুর্থ বলে জোড়া উইকেট তুলে নেন শফিকুল ইসলাম।

ফরচুন বরিশাল একাদশ: সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), মুনিম শাহরিয়ার, নাজমুল হোসেন শান্ত, ক্রিস গেইল, তৌহিদ হৃদয়, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), জিয়াউর রহমান, ডোয়াইন ব্রাভো, মুজিব উর রহমান, মেহেদী হাসান রানা ও শফিকুল ইসলাম।

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ: ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), আরিফুল হক, তানভির ইসলাম, আবু হায়দার রনি, মোস্তাফিজুর রহমান, শহিদুল ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়, সুনীল নারিন, মঈন আলী ও ফাফ ডু প্লেসি।

আরো পড়ুন

আমি সব সময় একই রকম থাকতে চাই : আফিফ হোসেন।

Shohag

বিপিএল খেলতে ঢাকায় এসে পৌঁছেছেন আন্দ্রে রাসেল

Shohag

সত্যি বলছি, আমি বিশ্বাস করিনি। একেবারেই না। এমন ঘটনা বিশ্বাস করার জন্য নিজের চোখে দেখতে হয় : তামিম ইকবাল

Shohag