22 C
Bangladesh
December 5, 2022
অন্যান্য

এখনো কাঁদেন সেই মুক্তামনির বাবা

মুক্তামনি। এ নামের সঙ্গে দেশ-বিদেশের অনেকেই পরিচিত। ২০১৭ সালে নামটি নিয়ে শিরোনামও হয়েছিল বিভিন্ন গণমাধ্যমে। অজানা রোগে আক্রান্ত মেয়েটির চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছিল সরকার। তবু মৃত্যুর কাছে হার মানল ১২ বছরের এ শিশু। মেয়ের মৃত্যুর কয়েক বছর কেটে গেলেও এখনো কাঁদেন বাবা।

মুক্তামনির বাড়ি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদাহ ইউনিয়নের দক্ষিণ কামারবায়সা গ্রামে। ২০১৮ সালের ২৩ মে সকালে নিজ বাড়িতেই মারা যায় শিশুটি। চিরনিদ্রায় শায়িত হয় দাদার কবরের পাশে।মুক্তামনির মৃত্যু অনেকেই মেনে নিতে পারেননি। তার জন্য কেঁদেছেন দেশ-বিদেশের হাজারো মানুষ। শোকবার্তা পাঠিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও। তবে মেয়ের মৃত্যুর চার বছর কেটে গেলেও এখনো ঝরছে মুক্তামনির বাবা ইব্রাহিম হোসেনের চোখের পানি।

সম্প্রতি মুক্তামনির বাড়িতে যান এ প্রতিবেদক। কথা হয় পরিবারের লোকজনের সঙ্গে। আলাপচারিতায় মুক্তামনির বাবা বলেন, কয়েক বছর হয়ে গেল মুক্তামনি মারা গেছে। এর মধ্যে অনেক পরিবর্তন হয়েছে। মুক্তামনির যমজ বোন হিরামনিকে বিয়ে দেওয়া হয়েছে। বেঁচে থাকলে মুক্তামনির বিয়ে হতো। মেয়েটি মারা গেলেও শূন্যতা সারা জীবন থাকবে আমাদের মনে।

ইব্রাহিম বলেন, মানুষকে ভালো আছি বললেও আমরা ভালো নেই। সব সময় মুক্তামনির জন্য একটা অপেক্ষা থাকে। মুক্তামনি অনেক ভালো মেয়ে ছিল। ধার্মিকও ছিল। গোটা হাতে হাজারো পোকা জন্ম নিলেও আল্লাহর প্রতি অখুশি হয়নি কখনো।

তিনি আরো বলেন, ২০১৭ সালে সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিতে আসে মুক্তামনি। সবার সহযোগিতায় ঢাকা মেডিকেলে তাকে ভর্তি করানো হয়। সেখানে ছয় মাস উন্নত চিকিৎসা দেওয়া হয়। তার সব দায়িত্বভার নিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। মুক্তামনির জন্য দেশ-বিদেশের অনেকে দোয়া করতেন। সব সময় ফোন করে খোঁজখবর নিতেন।

মুক্তামনির মা আসমা খাতুন বলেন, সব সময় মুক্তার কথা মনে পড়ে। কিছুতেই ভুলতে পারি না। আমার সংসারের লক্ষ্মী ছিল মুক্তামনি। তাদের দুই বোনের মধ্যে খুব মিল ছিল। মুক্তার মৃত্যুর পর হিরামনি মানসিকভাবে খুব ভেঙে পড়ে। সবসময় মুক্তার স্মৃতি মনে পড়ে। বাড়িতে এখন ছোট ছেলে, স্বামী আর আমি থাকি।

আরো পড়ুন

রাত্রির বক্তব্যে ঘটনার মোড় নিচ্ছে অন্যদিকে, ক্রমেই ঘনীভূত হচ্ছে রহস্য!

Shohag

নীলফামারীতে ব্যবসায়ী হত্যায় দম্পতি গ্রেপ্তার

Shohag

প্রবাসী স্বামীর ৩৫ লাখ টাকা নিয়ে সন্তান ফেলে পরকীয়া প্রেমিকের ঘরে স্ত্রী!

Shohag